রাজশাহী সিমান্তে পদ্মায় এক সপ্তাহে পানি বেড়েছে ২২৯ সেন্টিমিটার

রাজশাহী প্রতিনিধি :- আষাঢ়ের পুরো সপ্তাজুড়ে রাজশাহীতে বৃষ্টি হয়েছে। কখনও গুড়ি গুড়ি, কখনো থেমে থেমে,কখনও বা মুষলধারে। এমন বৃষ্টিপাত ও উজান থেকে নেমে আশা পাহাড়ী ঢলে বাড়তে শুরু করেছে পদ্মার রাজশাহী সিমান্তের পানি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন- এখন বর্ষা মৌসুম। এখন অতি বৃষ্টি ও পদ্মায় পানি বাড়াটা স্বাভাবিক।
রাজশাহী আবহাওয়া অফিস বলছেন- গেলো সাত দিনে রাজশাহীতে বৃষ্টিতে হয়েছে ১৩২ দশমিক ১ মিলিমিটার। একই সময়ে পদ্মার রাজশাহী সিমান্তে পানি বেড়েছে ২২৯ সেন্টিমিটার।
রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র পর্যবেক্ষক লতিফা হেলেন জানান- এবছর রাজশাহীতে আষাঢ়ের প্রথম সপ্তায় (১৫ থেকে ২১ জুন) পর্যন্ত ১৩২ দশমিক ১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। যেখানে গত বছর আষাঢ়ের প্রথমে তেমন বৃষ্টিপাত হয়নি। মঙ্গলবার (১৫ জুন) রাজশাহীতে ৬ দমিশক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। এছাড়া বুধবার (১৬ জুন) ২৭ দশমিক ৮ মিলিমিটার, বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) ২৫ দশমিক ২ মিলিমিটার, শুক্রবার (১৮ জুন) দমিশক ২ মিলিমিটার, শনিবার (১৯ জুন) ৩৪ দশমিক ৫ মিলিমিটার, রোববার (২০ জুন) ৩ দশমিক ৬ মিলিমিটার ও সোমবার (২১ জুন) ৩৪ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।
রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র পর্যবেক্ষক শহিদুল ইসলাম বলেন, চলতি আষাঢ়ের পাঁচদিনে ৯৪ দশমিক ১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। গত বছর আষাঢ়ের এই সময়ে তেমন বৃষ্টির দেখা মেলেনি। তবে এবছর বর্ষার যে ধারা, সেইভাবে বৃষ্টি ঝরছে।
রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের গেজ রিডার (পানি পরিমাপক) এনামূল হক জানান- চলতি বছরের মে মাসের শেষে দিকে অর্থাৎ ২৮ থেকে ৩১ মে তারিখের দিকে পানি বেড়েছিলো। এসময় সর্বোচ্চ পদ্মায় পানি ছিলো ১২ দশমিক ১২ সেন্টিমিটার। গত চার জুনের পরে সেই পানি কমতে থাকে। পানি কমায় অব্যহত থাকে ১৬ জুন পর্যন্ত। ১৭ জুন থেকে ফের পদ্মায় পানি বাড়তে থাকে।
তিনি আরও জানান- মঙ্গলবার (১৫ জুন) পদ্মায় রাজশাহী সিমান্তে পানি ছিলো ১১ দশমিক ১৬ সেন্টিমিটার, বুধবার (১৬ জুন) দশমিক ৫ সেন্টিমিটার করে দাঁড়ায় ১১ দশমিক ১১ সেন্টিমিটার। এর পর থেকে বাড়তে থামে পদ্মার পানি। বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) ছিলো ১১ দশমিক ২৪ সেন্টিমিটার, শুক্রবার (১৮ জুন) ১১ দশমিক ৩৯ সেন্টিমিটার। শনিবার (১৯ জুন) ছিলো ১১ দশমিক ৬৩ সেন্টিমিটার। রোববার (২০ জুন) ১২ দশমিক ৫৬ সেন্টিমিটার ও সর্বোচ্চ ২১ জুন পদ্মায় পানি ছিলো ১৩ দমমিক ৩৬ সেন্টিমিটার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *