অরক্ষিত সীমান্ত দিয়ে অবাধে যাতায়াত দু’দেশে  বহনাবহন হচ্ছে করোনা

 রাজশাহী প্রতিনিধি:-ভারত ঘেষা রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ  সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া না থাকা এবং উভয় দেশের গ্রাম গুলো পাশাপাশি হওয়ায়, সীমান্ত রক্ষীদের চোখ ফাঁকি দিয়ে ভারত- বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন অবৈধভাবে
 বিনা বাধায় যাওয়া আসা করছে দু’দেশের মানুষ।
ফলে ভারতীয় সীমান্তবর্তী জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহীতে করোনা সংক্রামন ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়ছে।
৬ জুন রোববার রাজশাহীর  চরমাজারদিয়া, খানপুর, চারঘাট ও গোদাগাড়ীর অরক্ষিত সীমান্ত দিয়ে বেশকিছু লোকজন বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন। তাদের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন গ্রামে। স্থানীয়রা এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। ভারত থেকে আসা কয়েকজন শ্রমিকের দুইটি ছবিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এ বিষয়ে কয়েক দফা চেষ্টা করেও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) দায়িত্বশীল কোনো কর্মকর্তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।
তথ্যানুযায়ী চাঁপাইবাবগঞ্জ জেলার  করোনা সংক্রমণ রোগীই ৯৩ শতাংশ ভারতীয় ধরন বহন করছে। জেলাটিতে লোকজন বিভিন্ন কাজে দেশের অভ্যন্তরে  রাজশাহী হয়ে যেতে হয়‌।  এর ফলে রাজশাহী জেলার মানুষ করণা আক্রান্তে রেগে জোনে।
 চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় চলছে পুণ্য লকডাউন ও রাজশাহী জেলায় সন্ধ্যা ,৭ টা থেকে ভোর ৬টি পর্যন্ত  সকল প্রকার গনজমায়েত ও চলাচলের ওপর কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তার পরও এই জেলায় করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে না, সংক্রমণ বাড়ছেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *