নওগাঁ জেলায় লকডাউনের সুপারিশ ঃ জেলায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত ১৪ দশমিক ৫১ শতাংশ ও মৃত্যু ১ দশমিক ৮০ শতাংশ

নওগাঁ প্রতিনিধি : সারাদেশে দ্বিতীয় ধাপে করোনা পরিস্থিতি বৃদ্ধির কারনে বর্তমানে স্বাস্থ্য বিভাগ কর্ত্তৃক যে ৭টি জেলাকে সর্বাত্মক লকডাউনে আওতায় নেয়ার সুপারিশ করেছে নওগাঁ জেলা তার মধ্যে অন্যতম। সম্প্রতি অন্য জেলাগুলোর সাথে এ জেলায় করোনা পরিস্থিতি হঠাৎ করে বৃদ্ধি পেয়েছে। আক্রান্ত এবং মৃত্যু দুইই বেড়েছে।
নওগাঁ’র জেলা প্রশাসক মোঃ হারুন-অর-রশীদ এবং সিভিল সার্জন ডাঃ এবিএম আবু হানিফ জানিয়েছেন দেশের যে ৭টি জেলাকে সর্বাত্মক লকডাউনের আওতায় নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে তার মধ্যে নওগাঁ রয়েছে। তবে জনপ্রশাসন থেকে এখন পর্যন্ত সে সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষনার নির্দেশনা পাওয়া যায় নি।
এদিকে জেলার সিভিলসার্জন অফিসের কন্ট্রোলরুম সুত্রে জানা গেছে ২০২০ সালের মার্চ মাসে করোনা পরিস্থিতি শুরু থেকে আজ ২০২১ সালের ৩০ মে পর্যন্ত পিসিআর ল্যাবে নওগাঁ জেলা থেকে ১৫ হাজার ৭শ ১৭ ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষার জন্য প্রেরন করা হয়েছে। এদের মধ্যে পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া গেছে ৫ হাজার ২শ ৫৬ ব্যক্তির। প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে জেলায় সর্বমোট করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ২ হাজার ২শ ১৫ জন। পরীক্ষা অনুপাতে আক্রান্তের পরিমান ১৪ দশমিক ৫১ শতাংশ।
এ পর্যন্ত জেলায় করোনা ভাইরাসে মৃত্যুবরন করেছেন ৪০ ব্যক্তি। শনাক্তের তুলনায় মৃতের হার ১ দশমিক ৮০ শতাংশ।
জেলায় হাসপাতাল কোয়ারেনটাইনে ৯০২ জনসহ সর্বমোট হোম কোয়ারেনটাইনে নেয়া হয় ২২ হাজার ৫৭ জনকে। এদের মধ্যে হাসপাতাল থেকে ৮৯২ জনসহ সর্বমোট কোয়ারেনটাইন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে ২১ হাজার ১শ ২৪ ব্যক্তিকে। বর্তমাসেন কোয়রেনটাইনে রয়েছেন ৯৩৩ জন।
এ পের্যন্ত সর্বমোট আইসোলেশনে নেয়া হয় ১০১ ব্যক্তিকে এবং এ পর্যন্ত আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে ৯৩ ব্যক্তিকে। বর্তমানে আইসোলেশনে অবস্থানকৃত ব্যক্তির সংখ্যা ৭ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১১ ব্যক্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *