যিনি রাখাল, তিনিই চোর উদ্ধার ১২ টি মহিষ !

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় মালিকের সাথে প্রতারণা করে ১২ টি মহিষ চুরি করে পালানোর সময় পুলিশের হাতে আটক হয়েছে জাহাঙ্গীর হোসেন নামে এক রাখাল। সোমবার(২৪-মে) রাতে বাঘার পদ্মার চরাঞ্চলের পলাশী ফতেপুর থেকে পার্শ্ববর্তী পুঠিয়া এলাকায় প্রবেশ করলে পুঠিয়া থানা পুলিশের সহায়তায় বাঘা থানা পুলিশ তাকে তাকে আটক করে। আটক জাহাঙ্গীরের পিতার নাম হাশেম খামারু বলে জানা গেছে।
থানা সূত্রে জানা গেছে, সোমবার মধ্য রাতে বাঘা উপজেলার পলাশী ফতেপুর এলাকার আশরাফ ঘোষের মহিষের খামার(বাথান) থেকে ১২টি মহিষ চুরি করে নিয়ে যায় তার রাখাল জাহাঙ্গীর হোসেন সহ অপর কয়েকজন সহযোগী। যার মূল্য প্রায় ১৭ লাখ। এ খবরটি ওই রাতে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে রাজশাহী পুলিশ সুপার মহোদয়কে অবগত করা হয়।
অত:পর পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় বাঘা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এস.আই) মামুন হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম রাত ভার অভিযান পরিচাল না করেন। এই অভিযানের মাধ্যমে তাঁরা জানতে পারেন পার্শ্ববর্তী পুঠিয়া উপজেলার বারই পাড়া নাম এলাকার একটি আম বাগানে মহিষ গুলো চরানো (ঘাস খাওয়ানো) হচ্ছে। এরপর পুঠিয়া থানা পুলিশের সহায়তা নিয়ে একই তারিখ সকাল ৯ টার সময় চোরাই ১২টি মহিষ উদ্ধার করে বাঘা থানা পুলিশ। এ সময় রাখাল জাহাঙ্গীর হোসেনকেও আটক করতে সক্ষম হন তারা।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)নজরুল ইসলাম জানান, চুরি হওয়া মহিষ গুলো সহ রাখাল জাহাঙ্গীর হোসেনকে আটক করা হয়েছে। বাঁকি আসামীদের ক্ষেত্রে গ্রেপ্তার অভিযান চলমান।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *