পল্লবীতে ছেলের সামনে বাবা খুনের আসামী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত:

বিশেষ প্রতিনিধি : রাজধানীর মিরপুরে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। র‍্যাবের দাবি,  মানিক নামে ওই ব্যক্তি পল্লবীতে সন্তানের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা মামলার ৫ নম্বর আসামি।

র‍্যাব বলছে, যে দুজন মূলত কুপিয়ে হত্যা করেছিল তাদেরই একজন মানিক। এই মামলায় গতকালই সাবেক সাংসদ আউয়ালকে (৫০) গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে র‍্যাব।

র‍্যাব-৪-এর পরিচালক মো. মোজাম্মেল হক জানান, গতকাল দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে মিরপুরের পল্লবীর ইস্টার্ন হাউজিং এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়। তিনি বলেন, সন্ত্রাসী দলের অবস্থান জানতে পেরে র‍্যাবের টহল দল ওই এলাকায় যায়।  তখন তারা অতর্কিত গুলি চালায়। র‍্যাবও গুলি ছোড়ে। ১০ মিনিটের মতো গোলাগুলি হয়। সেখান থেকে অন্যরা পালিয়ে গেলেও, একজনকে পড়ে থাকতে দেখা যায়।

পুলিশ এসে নিহত মানিককে পল্লবীর হত্যা মামলার আসামি হিসেবে শনাক্ত করে। মানিকের লাশ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে।

র‍্যাব বলছে, ঘটনাস্থল থেকে বিদেশি একটি পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ঘটনাস্থল থেকে যে দুজন পালিয়ে গেছেন তাঁদের শনাক্ত করা যায়নি।

গত রোববার বিকেলে রাজধানীর পল্লবীর ডি-ব্লকের ৩১ নম্বর রোডে খুন হয়েছিলেন সাহিনুদ্দিন (৩৩)। তাঁর বাসা পল্লবীর বুড়িরটেক।সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, দুই তরুণ দুই পাশ থেকে এক ব্যক্তিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাচ্ছেন। একপর্যায়ে ওই ব্যক্তি মাটিতে লুটে পড়েন। এরপর হামলাকারী একজন চলে যান। অপরজন ওই ব্যক্তির ঘাড়ে কোপাতে থাকেন মৃত্যু হওয়া পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *