নওগাঁ’র সাপাহারে বিবদমান শ্রমিক সংগঠনের মধ্যে বিরোধ ঃ সংবাদ সম্মেলনে পণ্য পরিবহন বন্ধে ৭২ ঘন্টার আলটিমেটাম

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁ’র সাপাহারে জেলা ট্রাক ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ডভ্যান পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ২৬৫০ সংগঠনের শ্রম ও কল্যান উপ-কমিটির ৩ সদস্যকে প্রতিপক্ষ সংগঠনের কতিপয় সদস্য কর্ত্তৃক মারপটি করারর অভিযোগ করা হয়েছে। পরিবহন মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন ২৩৮ ও তাদের ছত্রচ্ছায়ায় গড়ে উঠা জেলা ট্রাক ট্রাংকলড়ী শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যরা তাদের সাপাহার াফিসে তুলে নিয়ে বেদমভাবে মারপিট করা হয়। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় নওগাঁ জেলা প্রেসকাবে সংশ্লিষ্ট ২৬৫৮ সংগঠনের সদস্যরা আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেছেন।

সম্মেলনে এ লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জেলঅ ট্রাক, ট্যাংলড়ী, কাছ=ভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন ২৬৫৮ সংগঠনের সাধারন সম্পাদক মোঃ শফিকুল ইসলাম। লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়েছে গত ১লা মে শ্রমিক ইইনয়ন ২৬৫০ সংগঠনের সাপাহার উপজেলার শ্রম ও কল্যান উপ-কমিটির ৩ সদস্যকে মোটর শ্রমিক ২৩৮ ও জেলা ট্রাক ট্যাংক লড়ী ও কাভার্ডভ্যান শসিক ইউনিয়ন ২৬৫৮ সংগঠনের সদস্যরা তাদের অফিসে তুলে নিয়ে গিয়ে বেদমভাবে প্রহার করা হয়। এ নিয়ে উভয় সংগঠনের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করে। অবশেষে বিষয়টি সাপাহার থানায় অবহিত করলে থানা কর্ত্তপক্ষ ১৮ মে বেলা ১১টায় সমস্যা সমাধানের লক্ষে এক বৈঠকের আহবান জানানো হয়। সভা দীর্ঘ হওয়ায় সন্ধ্যা ৭টায় পুনরায় বসার আহবান জানিয়ে বিরতি ঘোষনা করা হয়।

এ সময় ২৬৫০ এর সদস্যরা দুপুরের খাবার জন্য গোডাউন পাড়ায় জনৈক শ্রমিক নেতা মহরম আলীর বাসায় যাওয়ার পথে সাপাহার ডাক বাংলোর সামনে ২৬৫০ এবং মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন ২৩৮ এর সদস্য সংঘবদ্ধভাবে তাদের উপর হামলা চালায়। এ রসময় তারা লোহার রড, লাঠিসোটা, কীর ধনুক, হাসুয়া, চাকু ইত্যাদি নিয়ে হামলা চালানো হয়। এতে ১০ জন শ্রমিক মারাত্মক আহত হন। তারা বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তারা শুধু হামলঅ চালিয়েই ক্ষান্ত হয় নি, বরং ঐ দিন সন্ধ্যায় ২৬৫০/০৯ এর সাপাহার উপজেলা শ্রম কল্যান উপ-কমিটির নেতা আবুল হোসেন বাদী হয়ে ৩৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১২০/১৩০ জন সদস্যের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়।

তারা সংবাদ সম্মেলনে ১লঅ মে এবং ১৮ মে তারিখের হামলা ও মারপিটের ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ন্যায় বিচার এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানানো হয়। অবিলম্বে দাবী মেনে নেয়ার জন্য ৭২ ঘনটার আলটিমেটাম দেয়া হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে দাবী মানা না হলে পরবর্তীতে সারাদেমেল সাথে পণ্য পরিবহন বন্ধ রাথা হবে বলে উল্লেখ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *