দলছুট হনুমানটি উদ্ধার! গোমস্তাপুরে রেলকর্মীসহ আহত ৯

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ অবশেষে গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর রেলস্টেশনের একটি চায়ের দোকান থেকে দলছুট হনুমানটিকে উদ্ধার করে রাজশাহী বন্য প্রাণী সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সদস্যরা।   গত দু’দিনে উপজেলায় রেলকর্মীসহ ৯ জনকে কামড় দিয়ে আহত করেছে হনুমানটি। এদের মধ্যে আহত কয়েকজন উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

গোমস্তাপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা একেএম সারোয়ার জাহান জানান, গত শনিবার সকালে দলছুট হনুমানটি ভোলাহাট উপজেলা থেকে রহনপুর পৌর এলাকায় প্রবেশ করে অবাধে ঘুরাফেরা করছিল। বিকেলে আলিনগর ইউনিয়নের কয়েকটা গ্রাম ও বিলের আশেপাশে  বিচরণ করতে দেখা যায়। এ সময় কয়েকজনকে কামড় দিয়ে আহত করে। রোববার সকালে পূণরায় আলিনগর ইউনিয়নে বিচরণ করার সময় কয়েকজনকে কামড় দেয়। খবর পেয়ে উপজেলা বনবিভাগের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় হনুমানটিকে পর্যবেক্ষণে রাখে। পরে হনুমানটি রহনপুর রেলস্টেশনে এসে আশ্রয় নেই। এ সময় রহনপুর রেলওয়ের কর্মচারী বাবলু ও ট্রাক চালক বুদ্ধুকে আহত করে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার,রহনপুর পৌর মেয়র ও গোমস্তাপুর থানা পুলিশকে অবহিত করে
রাজশাহী বন্য প্রাণী সংরক্ষণ অধিদপ্তরে কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে। তারা দুপুরে রহনপুর থেকে দলছুট হনুমানটিকে উদ্ধার করে রাজশাহী নিয়ে যায়।
এদিকে দলছুট হনুমানটিকে বিরক্ত না করতে ও জনসাধারণকে সাবধানে চলাচল করার জন্য রেলস্টেশন এলাকায় মাইকিং করেন রহনপুর পৌর কর্তৃপক্ষ।
এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, দলছুট হনুমানটি বেশ কয়েকজন কামড় দিয়ে আহত করেছে। এলাকায় আতংক বিরাজ করছিল। খবর পেয়ে বণ্য সংরক্ষণ অধিদপ্তরে কর্মকর্তরা দুপুরে রহনপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ওই হনুমানটিকে উদ্ধার করে।
এ ব্যাপারে রাজশাহীর বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ  অধিদপ্তর  কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে দলছুট হনুমানটিকে ধরতে সকাল ১১টার দিকে গোমস্তাপুর উপজেলা উদ্দেশ্যে রওনা দেয় । দুপুর পৌনে দুইটার দিকে হনুমানটিকে রেলস্টেশনের একটি চায়ের দোকানে আবদ্ধ করা হয়। পরে  নেটজাল ও খাঁচা দিয়ে বদ্ধ করা হয়। তিনি জানান,উদ্ধার হওয়ার হনুমানটিকে  ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গতঃ এলাকাবাসির ধারণা ভারতীয় হনুমানটি বেশ কয়েকদিন আগে সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে প্রবেশ করে ভোলাহাট উপজেলায় অবস্থান করছিল । সেখানে ইউপি সদস্যসহ একাধিক ব্যক্তিকে সে আক্রমণ করে আহত করে। সে সময় দলছুট হনুমানটি ধরতে বন বিভাগে কর্মকর্তারা ভোলাহাটে ব্যর্থ হয়। পরে হনুমানটি অবাধ বিচরণের ফলে গত শনিবার গোমস্তাপুর উপজেলায় অবস্থান নিয়ে ৯ জনকে আহত করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *