গোমস্তাপুরে করোনায় আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু

আরটি-পিসিআর পরীক্ষা;

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে গত শুক্রবার করোনা উপসর্গ নিয়ে মুখলেসুর রহমানের (৭৫) নমে এক ব্যক্তি মৃত্যুবরণ করে। মঙ্গলাবর সন্ধ্যায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আর টি পিসিআর পরীক্ষার মাধ্যমে তারসহ আরোও ৩ জনের পজিটিভ রিপোর্ট আসে। আক্রান্ত ব্যক্তিরা সকলেই বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছে।
গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনা মনিটরিং কর্মকর্তা ডা. হাসান আলী জানান, করোনার দ্বিতীয় টেউয়ে গত ১৭ এপ্রিল হতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা চালু হয়। পরীক্ষা চালুর পর থেকে প্রতিদিন ১থেকে ২ জনের দেহে করোনী শনাক্ত হচ্ছে। এ পর্যন্ত র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ৭ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাদের নমুনা পুণরায় পিসিআর পরীক্ষায় পাঠানো হলে ৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরা হলো,রফিকুল (৫০), আব্দুর রশিদ (৫৫) ও জিল্লুর রহমান (৫৯)। এছাড়া গত বৃহস্পতিবার গোমস্তাপুর ইউনিয়নের জাহিদ নগর গ্রামের মুখলেসুর রহমান (৭৫) নামে বৃদ্ধ জ্বর ও কাঁশি নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে তাৎক্ষণিক র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট পরীক্ষা করানো হয়। পরীক্ষায় তার নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। আরেকটি স্যাম্পল পিসিআর পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। এর মধ্যেই ওই রোগী গত শুক্রবারে বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। মঙ্গলবার রাতে পিসিআর রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ফলে তার করোনায় মৃত্যু হয়।
তিনি জানান, গোমস্তপুর উপজেলা ভয়াবহ করোনার ঝুঁকিতে আছে। এমতাবস্থায় সকলে সচেতন থাকতে,স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে অনুরোধ করেন। এছাড়া জ্বর-কাঁশি হলে দ্রুত হাসপাতালে যোগোযোগ করে র‌্যাপিড আ্যান্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে ৩০মিনিটেই করোনা শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে।
গত ১৭ এপ্রিল থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করে গোমস্তাপুর উপজেলায় ৬ জন ও নাচোল উপজেলার ১ জন মোট ৭ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *