সাজাপ্রাপ নারীর কারাগারের পরিবর্তে নিজ বাড়িতে সন্তান প্রসব

রাজশাহী প্রতিনিধি :-রাজশাহীতে সায়মা (৩০) নামে এক সাজাপ্রাপ্ত নারী, কারাগারের পরিবর্তে নিজ বাড়িতে থেকে সন্তান প্রসব করেছেন। এতে খুশি মামলার বাদী ও আসামি পক্ষ এবং স্থানীয় গ্রামবাসী। মামলার অভিযোগকারী শিল্পী আসামির ছেলে সন্তানকে কোলে নিয়ে আদর করতেও দেখা গেছে। শুক্রবার সায়মা সন্তান প্রসব করেন।
এ খবর জানাজানি হলে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। সবাই সায়মার সন্তানকে দেখতে বাড়িতে ভিড় করেন। সরকারের পক্ষ থেকে অপরাধী পুনর্বাসনের লক্ষ্যে সায়মাকে একটি গাভী দেওয়া হয়েছে। এতে খুশি সায়মার পরিবার।
এর আগে গত বছরের ১২ নভেম্বর মারামারির একটি মামলায় সায়মাকে ও তার স্বামী জাকির হোসেনকে ব্যতিক্রমধর্মী সাজা দিয়েছিলেন রাজশাহীর একটি আদালত। আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুল ইসলাম এ দম্পতিকে কারাগারে না পাঠিয়ে কিছু সামাজিক দায়িত্ব পালনের শর্ত দিয়ে নিজ বাড়িতে এক বছরের জন্য প্রবেশনে থেকে সংশোধনের সুযোগ করে দিয়েছিলেন।
এ শর্ত ভঙ্গ করলে তাদের স্থগিত হওয়া সাজা ভোগ করার জন্য কারাগারে যেতে হবে। এ দম্পতির বাড়ি রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার ছোট নারায়ণপুর গ্রামে।
মামলার প্রবেশনাধীন আসামি জাকির বলেন, আদালত থেকে সংশোধনের সুযোগ পেয়ে আদালতের দেওয়া শর্তগুলো মেনে চলেছেন। দুইজন প্রবেশন অফিসার সব সময় আমাদের পরামর্শ দিয়েছেন। এরইমধ্যে তারা উভয়পক্ষ আগের রাগ-ক্ষোভ ঝেড়ে মিলমিশ হয়ে গেয়েছেন।
আসামি জাকিরের প্রবেশন অফিসার মতিনুর রহমান জানান, যেহেতু আসামিরা প্রবেশনে থেকে সব শর্ত পূরণ করেছেন। উভয় পক্ষ আপসে সহাবস্থান করছে। সেহেতু তাদের পরবর্তী ত্রৈমাসিক প্রতিবেদনে ভালো সুপারিশ করে বিজ্ঞ আদালতের কাছে রিপোর্ট করবেন তিনি। তাদের সংশোধন করার পাশাপাশি পুনর্বাসন করার উদ্যোগ নিয়েছেন। মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে তাদের একটি গরুও কিনে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *