বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের ৩৮তম ব্যাচের শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারদের সাথে রাসিক মেয়র লিটনের মতবিনিময়

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের ৩৮তম ব্যাচের ৬০জন শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারের যোগদান উপলক্ষ্যে ৫ দিনব্যাপী ওরিয়েন্টশন ট্রেনিংয়ের অংশ হিসেবে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন সম্পর্কে ধারণা প্রদানের জন্য নগর ভবন পরিদর্শন ও অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে নগর ভবনের সিটি হলরুমে ৬০জন শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারের সাথে মতবিনিময় করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। সভায় শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর ও সার্বিক বিষয়ে বক্তব্য দেন মেয়র। সভায় শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারবৃন্দ রাজশাহী মহানগরীর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, সবুজায়ন ও উন্নয়নের ভূয়শী প্রশংসা করেন।
সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীনের পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ গড়ার কাজ শুরু করেন। তখন শুরু হয় নানাবিধ ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর বাংলাদেশকে মিনি পাকিস্তান বানানোর অপচেষ্টা চালানো হয়। নানা চড়ায়-উৎরায় পেরিয়ে সেই ধারা থেকে বাংলাদেশকে উন্নয়নের ধারায় ফিরিয়ে এনেছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁরই নেতৃত্বে বাংলাদেশের সর্বক্ষেত্রে উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে।
শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারদের উদ্দেশে রাসিক মেয়র বলেন, প্রশাসনে দায়িত্ব পালনে যোগ হয়েছেন মেধাবী শিক্ষার্থীরা। আপনারা জ্ঞানের সুষ্ঠ প্রয়োগের মাধ্যমে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সহযোগিতা করবেন। আপনারা সর্বদা দেশ ও জনগণের কল্যানে নিয়োজিত থাকবেন। সরকারের সকল নির্দেশনা পালন করে জনগণের সেবক হিসেবে দেশের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়নে অবদান রাখবেন।
মেয়র আরো বলেন, রাজশাহী মহানগরী দেশের অন্য নগরীর কাছে অনুকরণীয় নগরী। এ নগরীর সৌন্দর্য্য, পরিচ্ছন্ন ও উন্নয়ন বিষয়ে অন্য সিটি কর্পোরেশন বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করছে। রাজশাহী মহানগরীতে প্রশস্ত সড়ক ও ফুটপাত সহ সার্বিক উন্নয়ন করা হচ্ছে। রাসিকের সেবা জনগণের দৌরগোড়ায় পৌছে দিতে নতুন বিভাগ ও শাখা খোলা হয়েছে। পরিবেশ উন্নয়নে জিরো সয়েল প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।
সভায় সভাপতিত্ব করেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন। বক্তব্য দেন রাজশাহীর অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) ড. আব্দুল মান্নান ও রাসিকের প্রধান প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম। মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন মাননীয় মেয়রের একান্ত সচিব মো. আলমগীর কবির। রাজশাহীর উন্নয়ন বিষয়ক তথ্যচিত্র উপস্থাপন করেন তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী নূর ইসলাম তুষার। সভা পরিচালনা করেন রাসিকের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সমর কুমার পাল।
সভায় উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন শিক্ষানবীশ সহকারী কমিশনার মোঃ আরিফুল্লাহ খান, সুদিপ্ত দেবনাথ, শারমিন সুলতানা, রাশেদ হুসাইন, মাসুম রেজা। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য দেন শিক্ষানবীশ সহকারী কমিশনার গাজী মূয়ীদুর রহমান। সভায় রাসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভার শুরুতে শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারবৃন্দকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *