ফুলে-ফুলে সিক্ত আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলী

বাঘা(রাজশাহী) প্রতিনিধি : এক টানা ১৯ বছর জনপ্রতিনিধিত্ব চলছে মুক্তার আলীর। তিনি চলমান মেয়র থাকার পরেও দলীয় মনোনয়ন পাননি। এতে তাঁর আক্ষেপ নেই। তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ার পর থেকে একটি কথাই বলে আসছেন সবার মাঝে, প্রতীক আমার প্রতিদ্বন্দ্বী নয়। আমার প্রতিদ্বন্দ্বী ব্যাক্তি। অবশেষে তিনি আবারও মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। এখন তাঁকে ফুল-ফুলে সিক্ত করছেন অনেকে। তবে সবার কাছে তাঁর একটিই কথা, “আমি পৌর পিতা নয়, আমি সেবক হতে চাই। এ জন্য তিনি রেল লাইনের উত্তর প্রান্তের মানুষের প্রতি গভির ভালোবাসা এবং কৃতঙ্গতা প্রকাশ করেছেন।
মুক্তার আলী প্রথমে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন।এরপর আড়ানী পৌরসভা প্রতিষ্ঠা পেলে প্রথম নির্বাচনেই কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র, অত:পর ভারপ্রাপ্ত মেয়র এবং সর্বশেষ ২০১৫ সালে বিপুল ভোটে মেয়র নির্বাচিত হন। এরপর ১৬ জানুয়ারী ২০২১ বাংলাদেশের দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে তিনি আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে আবারও মেয়র নির্বাচিত হন। এই নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর রাত থেকে তাঁকে ফুল দিয়ে সিক্ত করছেন তার অসংখ্য কর্মী-সমর্থক সহ পৌর বাসীরা।
স্থানীয় সমাজ সেবক আলহাজ শামিম হোসেন সহ পৌর এলাকার অনেকেই জানান, আড়ানী বাজারের উত্তর প্রান্তে বড়াল নদীর উপর দিয়ে একটি রেল লাইন প্রবাহিত। এই লাইনের উত্তর এবং দক্ষিণ প্রান্তের মানুষের মধ্যে বরাবর বিভাজন কাজ করে। উত্তরের লোকজন সব সময় নিজেদের ক্ষমতাধর মনে করেন। যার ব্যাত্বয় ঘটেনি এবারের নির্বাচনেও। এবার মেয়র পদে আ’লীগ এবং বিএনপি দুই প্রার্থীই দলীয় মনোনয়ন পান রেল লাইনের উত্তর থেকে। সর্বশেষ নির্বাচনের ফলা-ফলে লাইনের উত্তর থেকে তিনটি কেন্দ্র মিলে সাড়ে ৩ হাজার ভোটের মধ্যে মুক্তার আলী পান মাত্র ৫৩ ভোট।
মুক্তার আলী এ প্রতিবেদককে বলেন, মানুষ আমাকে সবসময় কাছে পেয়েছেন,তাই এবারও আমার হাতেই তারা এ পৌরবাসীর দায়িত্ব তুলে দিয়েছেন। আমি নিজেকে পৌরপিতা নয়, জনগণের একজন সেবক মনে করি। আমার কাছে অর্থ বিত্তের চেয়ে মানুষের ভালবাসা বেশি দামি। আর সেই ভালবাসার তাগিদে মানুষ আমাকে তাদের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করেছেন। এ জন্য আমি মানুষের প্রতি চির কৃতঙ্গ। আমি আড়ানী পৌর সভাকে আগামিতে একটি মডেল পৌরসভা বানানো-সহ অবকাঠামো মূলক অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজগুলো সম্পন্য করতে চাই।
আপনার কাছ থেকে পৌরবাসীরা কি ধরনের নাগরিক সুযোগ-সুবিধা পাবে ? এমন প্রশ্নের উত্তরে মুক্তার আলী বলেন, সাধারণ মানুষ অনেক আশা নিয়ে আমাকে দ্বিতীয়বার আড়ানী পৌর মেয়র নির্বাচিত করলো। আমি নির্বাচনের পুর্বে কথা দিয়েছি, যতদিন বেঁচে থাকবো ততো দিন মানুষের পাশে থেকে সেবা করার চেষ্টা করে যাবো।
মুক্তার আলী বলেন, দেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে চলেছে। আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন তা বিগত কোন সরকার পারেননি। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে তিনি মাত্র ১২ বছরের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশের গন্ডি পেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করেছেন এবং আমাদেরকে এখন রূপকল্প দিয়েছেন বাংলাদেশকে ২০৪১ সাল নাগাদ একটি উন্নত সোনার বাংলা গড়ার। আমি তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা রেখে কথা দিচ্ছি ,আগামিতে সে লক্ষে কাজ করে যাবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *