রাজশাহীর ভবানীগঞ্জে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থীর ভোট বর্জণ

রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারার ভবানীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ব্যাপক সংঘর্ষ, বিরোধী প্রার্থীর উপর হামলা, কেন্দ্র দখল, এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া ও জাল ভোট দেয়াসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে বিএনপির সমর্থিত ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক প্রামানিক সকালেই ভোট বর্জণ করেছেন। সকাল ১০ টার দিকে পৌরসভার চাঁনপাড়াস্থ নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি ভোট বর্জণের ঘোষনা দেন।
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক অভিযোগ করেন, সকালে ভোট গ্রহনের শুরুতেই বিএনপি সমর্থিত ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে আসতে বাঁধা দেয়া এবং জাল ভোট দেয়ার মহোসৎব শুরু হয়। বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে তার পোলিং এজেন্টদের মারপিট করে কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়। তাছাড়া সকালে বিএনপির সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক উপজেলা সদর ভবানীগঞ্জ পৌরসভার শহীদ সেকেন্দার মেমোরিয়াল হাইস্কুল কেন্দ্রে ভোট দিতে গেলে আ’লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থীর পক্ষের লোকজন তার উপর পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা বিএনপির সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক ও তার লোকজনকে বেধড়ক মারপিট শুরু করে। এক পর্যায়ে মেয়র প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক ভোট না দিয়েই কেন্দ্র থেকে পালিয়ে গিয়ে প্রাণে রক্ষা পান।
বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক অভিযোগ করে বলেন, শহীদ সেকেন্দার মেমোরিয়াল হাইস্কুল কেন্দ্রে আমি আমার নিজের ভোট দিতে গিয়েছিলাম। কিন্তু নৌকার সমর্থকরা আমাকে আমার নিজের ভোটটাও দিতে দেয়নি। আমাকে কেন্দ্রে ঢুকতেই দেয়া হয়নি। বাংলাদেশের ইতিহাসে কোথাও এমন হয়েছে যে প্রার্থী তার নিজের ভোটটাও দিতে পারেনি? তাছাড়া আমার সমর্থকদের মারপিট করে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে এবং বিভিন্ন কেন্দ্রে তার ভোট ক্যাম্প ভাংচুর করে তার পোলিং এজেন্টদের মারপিট করে কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। কাজেই এমন নজির বিহীন অনিয়মের ভোটে থেকে লাভ কি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *