মনোনয়ন দাখিলে একক প্রার্থী বিএনপির,আ’লীগে বিভক্তি !

বাঘা(রাজশাহী)প্রতিনিধি : আসন্ন আড়ানী পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন রবিবার(২০-ডিসেম্বর) বিএনপি থেকে একক প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিলেও সরকারি দল আ’লীগের মধ্যে বিভক্তি দেখা দিয়েছে। এই দল থেকে দলীয় প্রার্থীর বাইরে আরো দুই বিদ্রোহী প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে বর্তমান মেয়র মুক্তার আলী দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে আড়ানী বাজারে মানব বন্ধন করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন ।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আগামি ১৬ জানুয়ারী আড়ানী পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারি দল আ’লীগ থেকে মনোনয়ন চেয়ে ছিলেন ৮ জন। এর মধ্যে দলীয় ভাবে মনোনয়ন পেয়েছেন আড়ানী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ছাত্র নেতা শহিদুজ্জামান সাইদ। তাঁর সাথে রবিবার মনোনয়ন জমাদেন উপজেলা ও আড়ানী পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সহ বাঘা উপজেলা আ’লীগের অধিকাংশ নেতৃবৃন্দ।
তবে সাইদ এর মনোনয়ন পাওয়া টাকে মেনে নিতে পারেননি বর্তমান মেয়র মুক্তার আলী ও তরুণ ছাত্রলীগ নেতা রিবন আহমেদ বাপ্পী। রবিবার মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ দিন সকালে মুক্তার আলীর লোকজন আড়ানী বাজারে দলীয় প্রার্থী শহিদুজ্জামান সাইদের মনোনয়ন বাতিল করে মুক্তারকে মনোনয়ন দেয়ার দাবি রেখে মানব বন্ধন করেন। এরপর দুপুরে অসংখ্য নেতা-কর্মীকে সাথে করে উপজেলা রিটারিং অফিসার ও নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজার হাতে মনোনয়ন জমা দেন।
অপর দিকে ছাত্রলীগ নেতা রিবন আহমেদ বাপ্পীর লোকবল চমকে দিয়েছে আড়ানী বাসীকে। তার সাথে মনোনয়ন জমা দিতে আসেন অসংখ্য নারী-পুরুষ। বাপ্পী বলেন, সামাজিক পরিসরে আমার কর্মকান্ড, আমার রাজনৈতিক আদর্শ-কর্মনিষ্ঠা, আমার বাবার ত্যাগ এবং সর্বপরি আমার প্রতি আড়ানীর সর্বস্তরের জনসাধারণের যে ভালবাসা গড়ে উঠেছে এসব বিবেচনায় আমার বিশ্বাস ছিল দল আমাকে মনোনয়ন দিবে। কিন্তু রাজনৈতিক মারপ্যাচে মনোনয়ন না পেলেও আমার কর্মী-সমর্থকদের চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত আমি মনোনয়ন জমা দিয়েছি। আমার বিশ্বাস দলীয় এবং সাধারণ লোকজন যে ভাবে সাড়া দিয়েছেন আমি এই নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হবো।
এদিকে বিএনপি থেকে ৩ জন মনোনয়ন উত্তোলন করলেও শেষ পর্যন্ত জমা দিয়েছেন দলীয় প্রার্থী তুজাম্মেল হক। তিনি এই মুহুর্তে ক্লিন আমেজে রয়েছেন। কারণ তার সাথে রয়েছেন উপজেলা বিএনপির সকল নের্তৃবৃন্দ। তার বিরুদ্ধে আগের দিন শনিবার সাবেক মেয়র নজরুল ইসলাম সমাবেশ ডেকে বিপুল অর্থের বিনিময়ে মনোনয়ন কেনার অভিযোগ করলেও রবিবার তাঁকে খুজে পাওয়া যাইনি। এমনকি তাঁর মোবাইলটিও বন্ধ ছিলো।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার মজিবুল আলম জানান, আড়ানী পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ দিন রবিবার বিকেল পর্যন্ত মোট ৪৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে মেয়র পদে ০৪ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৯ জন এবং নারী কাউন্সিলর পদে ১০ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *