আইনি জটিলতায় নষ্ট হচ্ছে সাড়ে ৫ লাখ টাকার আলু !

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি : রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় এক সপ্তাহ পূর্বে ২৯২ বোতল ফেন্সিডিল সহ আটক হয় একটি আলুর ট্রাক। যার বাজার মুল্য সাড়ে ৫ লাখ টাকা। বর্তমানে আইনি জটিলতার কারণে এই আলু গুলো নষ্ট হতে বসেছে বলে দাবি করেছেন আলুর মালিক কাজেম উদ্দিন।
কাজেম উদ্দিন পুঠিয়া উপজেলার বাসিন্দা। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, গত এক সপ্তাহ ধরে আলু উদ্ধোরের জন্য আদালতে হাঁটছি। নি¤œ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট আমি’ই প্রকৃত আলুর মালিক কি-না সেটি জানান জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন। পুলিশ আমার পক্ষে প্রতিবেদন দিয়েছেন। এ জন্য ৩ দিন সময় লেগেছে। সর্বশেষ (১৫-ডিসেম্বর) আমি ফের আদালতের স্বরণাপূর্ণ হলে উচ্চ আদালত জর্জ কোর্টে শোনানীর মাধ্যমে আলু উদ্ধারের কথা বলেন ঐ ম্যাজিস্ট্রেট।
উল্লেখ্য গত ৮ ডিসেম্বর মহনপুর উপজেলার “দেশ কোলিস্টর’’ থেকে (ঢাকা মেট্টো ট-২৪৩৩৪৫ নম্বর) ট্রাকে আলুগুলো লোড করা হয়। এই ট্রাকটি নাটোর হয়ে পটুয়াখালির আমতলী যাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু ট্রাকের ডাইভার এবং হেলফার অতিরিক্ত ২০ হাজার টাকা ভাড়া পাওয়ার চুক্তিতে বাঘা সীমান্ত এলাকার মাদক ব্যাবসায়ী বাসার আলী (৪৫)এর মাধ্যমে বানেশ্বর হয়ে বাঘা সীমান্ত এলাকার মীরগঞ্জে প্রবেশ করে। সেখান থেকে একটি বস্তায় ২৯২ বোতল ফেন্সিডিল উঠানো হয় ঐ ট্রাকে। অত:পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাঘা বাজারের পূর্ব প্রান্তে বানিয়া পাড়া নামক পাকা রাস্তায় ডাইভার এবং হেলফার সহ ট্রাকটি জব্দ করে রাজশাহী র‌্যাব-৫।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাঘা থানা উপ-পরিদর্শক (এস.আই) আব্দুল খালেক বলেন, ট্রাকে বোঝায়কৃত পন্য কাঁচামাল হেতু এটি অকশানের জন্য আমি প্রথমে আদালতে আবেদন দিয়ে ছিলাম। পরে আলুর মালিক পাওয়াই প্রকৃত চালান(ম্যামো)দেখে তদন্ত সাপেক্ষে ফের আদালতে প্রতিবেদন দিয়েছি। সেখান থেকে আদেশ না আসায় আমরা আলু গুলো হস্তান্তর করতে পারছি ন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *