বাঘায় জমি নিয়ে আদালতে মামলা রাতের আধারে ঘর নির্মান !

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি :  রাজশাহীর বাঘায় জমি নিয়ে আদালতে মামলা করার পর রাতের আধারে ঘর নির্মান করেছেন একটি পক্ষ। এ ঘটনায় অপর পক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন প্রতিপক্ষের নামে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার জোতরাঘর এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে হাসানুজ্জামান রিপন (৪২)ওয়ারিশ এবং ক্রয় সুত্রে তাঁর নিজ এলাকায় ২৭ শতাংশ জমির মালিক। বর্তমানে এই জমি তার ভোগ দখলে রয়েছে। এ নিয়ে প্রতিপক্ষ সুলতান আহাম্মেদ (৫৫) দ্বিগর ওই জমির আংশিক মালিক দাবি করে রাজশাহী কোর্টে রেকর্ড সংশধীর অভিযোগ করেছেন।
এদিকে আদালতে মামলা চলমান অবস্থায় সুলতান আহাম্মেদ, জহুরুল ইসলাম, আশরাফুল ইসলাম,আনোয়ার হোসেন ও মিজানুর রহমান সহ তাদের লোকজন সোমবার দিবাগত রাতে ওই জমির উপরে আকষ্মিক ভাবে একটি টিনসেট ঘর নির্মান করেন। এরপর সকালে লোকমুখে খবর পেয়ে জমির মুল মালিক হাসানুজ্জামান রিপন বাঘা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
স্থানীয় কবিল উদ্দিন, শামিম হোসেন ও কালু মিয়া জানান, গত একদিন পুর্বেও এখানে কোন ঘর ছিলনা। হটাৎ সকালে ঘুম থেকে উঠে টিনের তৈরী একটি সাবরা ঘর আমরা লক্ষ করছি। জোতরাঘর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য চঞ্চল বলেন, এই জমির মুল মালিক মৃত বাহার উদ্দিন। তাঁর দুইটা স্ত্রী ছিলেন। তাঁরা সকলেই মারা গেছেন। এখন উভয় (স্ত্রী) পক্ষের ওয়ারিশদের মধ্যে যে পক্ষ আদালতে মামলা করেছে তারাই রাতের আধারে ঘর নির্মান করেছেন।
ঘর নির্মানকারী সুলতান আহম্মেদ,জহরুল ইসলাম,আশরাফুল ইসলাম দাবী করে বলেন ৫ বছর আগের নির্মান করা হয়।
বাঘা থানার এস আই মামুন হোসেন জানান, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ঘটনার স্থাল পরিদর্শন করেছি তাতে দেখা গেছে সুলতান আহম্মেদের পক্ষরা সোমবার রাতে ঘর নির্মান করেছে। আগে ওই জমিতে কোন ঘর ছিলনা। তাদের কে বলে দিয়েছি ওই জমির মামলা শেষ নাহওয়া পর্যন্ত কোন পক্ষ জমি দখল করতে পারবেনা।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, এ সংক্রান্তে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত জন্য একজন্য এস আই কে তদন্তর জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *