বাঘায় তিন যুবকের নামে চুরির মামলা দিয়ে হয়রানী: ৫টি টায়ার উদ্ধারসহ ১চোর গ্রেফতার

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি : রাজশাহীর বাঘায় তিনজন যুবকের নামে চুরির মামলা দিয়ে হয়রানী। চুরি হওয়া ৫টি টায়েরসহ এক চোর কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
জানা যায়, গত ১৪ এপ্রিল-২০২০ ইং তারিখে বাঘা পৌর এলাকায় দক্ষিন মিল্লিক বাঘা গ্রামে বজলুর করিমের ছেলে আরিফুল ইসলাম জনি বাদী হয়ে বাঘা থানায় তিনজন যুবকের নাম জড়িয়ে প্রতিহিংসার স্বীকার হয়ে বাঘা থানায় দোকান চুরির মামলা দায়ের করে। এই মামলার আসামীরা হচ্ছে বাঘা পৌর এলাকার উত্তর মিল্লিক বাঘা গ্রামের উজির উদ্দীনের ছেলে ফারুক হোসেন, ছাতারী গ্রামের সিদ্দিক হোসেনের ছেলে জুয়েল হোসেন ও জিল্লুর রহমানের ছেলে সম্রাট আলী, এই মামলায় আসামী উপর ফারুকে গ্রেফতার পর নির্যাতন করার অভিযোগ রয়েছে।বর্তমানে এজাহার ভুক্ত আসামীরা জামিনে রয়েছে। গত রবিবার ২৯ নভেম্বর বিকেলে বাঘা থানার পুলিশ আরিফুল ইসলাম জনির দোকানের চুরি হওয়া ৫ টি টাইয়েরসহ লালপুর উপজেলার নবি নগর গ্রামের শাহ-জালালের ছেলে নাহিদ ইসলাম (২৮) কে গ্রেফতার করে। এতে প্রমানিত হওয়াই যে এজাহার ভুক্ত আসামীরা এ দোকান চুরি সঙ্গে জড়িত না। বাদীর প্রতিহিংসার স্বীকার হয়ে ওই তিন যুবক চরম হয়রানীর স্বীকার ও সমাজে হেয়প্রতিপন্নর হয়েছে। এব্যাপারে উর্দ্ধতন কত’পক্ষের দৃষ্টি প্রয়োজন বলে বাঘা পৌর বাসী মনে করেন।
বাঘা থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) জানান, চুরি হওয়া ৫টি টায়েরসহ একজন আসামী কে গতকাল সোমবার রাজশাহী কোর্ট হাজতে প্রেরন করা। এ চুরির আসল রইস উদ্ধোটনের চেষ্ঠা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *