বাঘাতে অনলাইন পাঠে বঞ্চিত ৭৫ ভাগ শিক্ষার্থী

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি : মহামারী করনা পরিস্থিতিতে সরকারী নির্দেশনায় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সরাসরি পাঠের বিকল্প পদ্ধতি অনলাইনে পাঠ থেকে বাঘা উপজেলার প্রায় ৭৫ শতাংশ শিক্ষর্থী সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। আনড্রয়েড মুঠোফোন ও দ্রুত ইন্টারনেট সংযোগ না থাকার কারণে অনলাইন পাঠ গ্রহনের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদেও শিক্ষাক্ষেত্রে বিকাশের কথা বিবেচনা করে স্কুল কলেজ ও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইনে পাঠদান চালু করেছে। সরকারীভাবে ও বিটিভিতে পাঠদান চালু রয়েছে। পৌরশহর বা উপজেলার আশপাশে অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা আনড্রয়েড মুঠোফোন ও ল্যাপটপ ব্যবহার করে এ সুযোগ গ্রহণ করছে। তবে এ সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে গ্রামে বসবাসরত শিক্ষার্থীরা । জানা যায় আনড্রয়েড মুঠোফোন ও ইন্টারনেট সুবিধা না থাকায় শতকরা ৭৫ শতাংশ শিক্ষার্থী অনলাইনে পাঠ গ্রহনের সুযোগ নিতে পারছেনা। জানা গেছে বাঘা পৌরসভা ছাড়া উপজেলার কোন ইউনিয়নের গ্রাম পর্যায় বডব্র্যান্ড ও ওয়ায়ফাই সুবিধা নাই অপরদিকে লোডশেডিংয়ের কারণে যাদের ল্যাপটপ বা আনড্রয়েড মুঠোফোন রয়েছে তারাও সঠিক সময়ে পাঠ গ্রহন করতে পারে না। আর যে সব অসচ্ছল পরিবারে ল্যপটপ বা আনড্রয়েড মুঠোফোন নেই তাদের পক্ষে তো সম্ভবই নয় । বাঘা উপজেলার বিভিন্ন স্কুল ও কলেজ প্রধানদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে , সরকারী নির্দেশনায় তাদের শিক্ষকরা অনলাইনে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করাচ্ছেন। তবে এই সুযোগ নিতে পারছে সীমিত সংখ্যক শিক্ষার্থীরা। শাহদৌলা সরকারীকলেজের অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক, বাঘা উচ্চ বিদ্যলয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলী দেওয়ান বলেন ,অনলাইনে পাঠদান সুযোগ থেকে শতকরা ৭৫ শতাংশ শিক্ষার্থী বঞ্চিত হচ্ছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *