মুজিববর্ষ উপলক্ষে গোমস্তাপুরের বোয়ালিয়া ইউডিসির মাসব্যাপী  ই-সেবা ক্যাম্পেইন

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উৎযাপন উপলক্ষে “বাড়ছে সেবার বহর, গ্রাম হবে শহর” -এ শ্লোগানকে সামনে রেখে  সারাদেশের ন্যায়  চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোগে তৃণমূল জনগণকে ই-সেবা সম্পর্কে মাসব্যাপী অবহিতকরণ ও প্রচারাভিযান অব্যাহত রেখেছে। এটুআই ও উপজেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে ১০ অক্টোবর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত দেশের প্রতিটি ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা নিজ নিজ সেন্টারে মাধ্যমে তাদের সেবার কার্যক্রম জনগণের মাধ্যমে তুলে ধরছে।  এ প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে উপজেলার বোয়ালিয়ার ইউনিয়নসহ অন্যান্য ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে মাইকিন ও গম্ভীরা গানের মাধ্যমে লিফলেট বিতরন করা হচ্ছে।
বোয়ালিয়া ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা মোঃ অলিউল ইসলাম ডালিম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের ডিজিটাল বাংলাদেশকে বাস্তবে রূপান্তর করতে এটুআই প্রকল্পের মাধ্যমে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলো অগ্রনী ভূমিকা রাখছে। ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে তৃণমূল জনগণকে ই-সেবা সম্পর্কে অবহিতকরণ এবং ডিজিটাল সেন্টারের সেবা গ্রহণে মাসব্যাপি ‘মুজিব শতবর্ষ ই-সেবা ক্যাম্পেইন ২০২০’ পালনের বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। ক্যাম্পেইন চলাকালীন বোয়ালিয়া ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার থেকে ইউনিয়নের যেকোন নাগরিক এ সেবা নিতে পারবে। এছাড়া জনগণের দোরগোড়ায় সরকারি বেসরকারি সকল সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষে যেকোন ডিজিটাল সেবা স্বল্পমূল্যে প্রদান করা হবে।
উদ্যোক্তা অলিউল ইসলাম ডালিম আরো  জানান, সারাদেশের ইউনিয়ন পৌরসভা ও সিটি করপোরেশন থেকে প্রায় ২৭০ ধরনের সরকারি বেসরকারী সেবা প্রদান করা হচ্ছে।
কম্পিউটার প্রশিক্ষণ, আউটসোসিং,  অডিও রেকডিং,  ভিডিও বিজ্ঞাপন, পাসপোর্টের আবেদন ও ফি জমা, পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের আবেদন, জন্ম নিবন্ধন, মৃত্যু নিবন্ধন, অনলাইনে চাকরির আবেদন, জাতীয় পরিচয় পত্র অনলাইন কপি প্রদান, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, জমির খতিয়ান, ড্রাইভিং লাইসেন্সের আবেদন। সকল প্রকার প্রত্যয়ন পত্র,ওয়ারিশের আবেদন, ব্যাংকিং সুবিধা, বিধবা ও বয়স্ক ভাতার আবেদন,ভিজিডির আবেদনসহ যাবতীয় সেবা প্রদান করা হয়। কম খরচে,সহজেই সেবা দিতে বদ্ধ পরিকর তৃণমূলের এ ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলো।
উল্লেখ্য, একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম,তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতা এবং বাস্তবায়নে এ ক্যাম্পেইং চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *