পাবিপ্রবিতে ৮ দফা দাবীতে একক অবস্থান কর্মসূচীতে সহযোগি অধ্যাপক

পাবনা প্রতিনিধিঃ পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য’র সীমাহীন দূর্নীতি, অনিয়ম, ক্ষমতার অপব্যবহারের প্রতিবাদসহ ৮ দফা দাবীতে একক অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বিশ্ববিধ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এম আব্দুল আলীম।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে একক অবস্থান কর্মসূচীতে বসেছেন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এম আব্দুল আলীম।
৮ দফাগুলো হচ্ছে; অনিয়ম-দুর্নীতির সংক্রমণরোধে ইউজিসির তদন্তে অনিয়ম-দুর্নীতি প্রমাণিত হওয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আব্দুস সুবহানকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের রিজেন্ট বোর্ড থেকে অপসারণ করতে হবে, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপকদের এই বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বাতিল করতে হবে। কোনরকম দায়িত্ব পালন না করে মাসের পর মাস গ্রহণ করা তাঁদের বিপুল অঙ্কের টাকা এই বিশ্ববিদ্যালয় ত হবিলে ফেরত আনতে হবে। একই সাথে দীর্ঘদিন ধরে মানবেতর জীবনযাপনকারী এই বিশ্ববিদ্যালয়ের খন্ডকালীন শিক্ষককে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদান করতে হবে। অনৈতিকভাবে সংশোধন করা সর্বশেষ শিক্ষকদের প্রমোশন নীতিমালা ও নিয়মভঙ্গ করে দেওয়া শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাতিল করতে হবে। শিক্ষকদের জ্যেষ্ঠতা মেনে পদোন্নতি দিতে হবে। সদ্য অৎর্গানোগ্রাম থেকে বাদ দেওয়া প্রায় দশ বছর বয়সী আধুনিক ভাষা ইন্সটিটিউট পুনরায় অর্র্গানোগ্রামে যুক্ত করতে হবে এবং এই ইন্সটিটিউটে এডহক-ভিত্তিতে চাকরি করা দুই শিক্ষকের মাসের পর মাস বন্ধ হওয়া বেতন পুনরায় চালু করতে হবে এবং তাদের চাকুরি নিশ্চিত করতে হবে। শিক্ষক-হয়রানি বন্ধসহ শিক্ষকদের সঙ্গে অশালীন আচরণ বন্ধ করতে হবে। শিক্ষা ও গবেষণার পরিবেশ রক্ষায় উপাচার্য কর্তৃক শিক্ষকদের মধ্যে গ্রুপিংবাজি বন্ধ করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন লঙ্ঘন করে নিয়োগ-সংক্রান্ত অনিয়মের অভিযোগ তদন্তে কমিটি গঠন করতে হবে। ভাইস-চ্যান্সেলর পদের মর্যাদা রক্ষায় বর্তমান উপাচার্য মহোদয় কর্তৃক ক্ষমতার অপব্যবহার করে ফাঁকি দেওয়া বিপুল অঙ্কের বাড়িভাড়া বিশ্ববিদ্যালয় তহবিলে ফেরত দিতে হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে বাস্তবায়নাধীন প্রায় ৫শত কোটি টাকার পপ্রকল্পের কাজে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে হবে।
এ বিষয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা ড. আব্দুল আলীম বলেন, উপাচার্য ড. এম রুস্তম আলীর সীমাহীন অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বৈরাচারী কর্মকান্ড এবং শিক্ষকদের ওপর জুলুম নির্যাতনের প্রতিবাদসহ ৮ দফা দাবীতে তার এই কর্মসূচি পালন। দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে। এ দাবী শেষ পর্যন্ত মানা না হলে শিক্ষকদের সাথে কথা বলে পরবর্তী কর্মসূচি দেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *