বাঘায় ৫ লক্ষ টাক মুক্তিপন চেয়ে অপহরণ, একদিন পর ভিকটিম উদ্ধার

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি :রাজশাহীর বাঘায় ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবি করে জসিম নামে এক যুবককে অপহরণ করা হয়েছে। এ খবর শুনে অপহৃতর পিতা থানায় তিনজনকে অভিযুক্ত করে একটি মামলা দায়ের করলে ভিকটিমকে ঘটনার একদিন পর উদ্ধার করেছে পুলিশ।
অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার কেশবপুর গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে অটো রিকসা চালক জসিম(২৪)কে শনিবার সকালে নাটোর জেলার বাগাতি পাড়া উপজেলার জামনগর এলাকায় ভাড়া মারার কথা বলে ডেকে নিয়ে যাই পাশ্ববর্তী আলাইপুর গ্রামের সানার প্রাং এর পুত্র বকুল(৪০)।সেখানে যাওয়ার পর তাকে একটি ঘরে আটক করে জসিমের বাবার নিকট ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপুন দাবি করেন বকুল। এ সময় টাকা কেথায় দিতে হবে জানতে চাইলে তিনি পাকুড়িয়া ইউপি সদস্য মাদক ব্যবসায়ী রুবেল হোসেন অথবা তার ভাই সনির নিকট জমা দিতে বলেন। অন্যথায় জসিমকে প্রানে মারার হমকি দেয়া হয়।
এদিকে মুক্তিপন চাওয়া মাত্র জসিমের পিতা মোজাম্মেল হক নিরুপায় হয়ে তৎক্ষনাত বাঘা থানায় চলে আসেন এবং তিনজনকে অভিযুক্ত করে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। এ মামলা দায়েরের পর রাতে রুবেল মেম্বfর- এর বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ। এ সময় রুবেল মেম্বfর ও তার ভাই সনি বাড়িতে না থাকায় পুলিশ সেখান থেকে ফিরে আসেন।
পরে মোবাইল ট্রাকিং এর মাধ্যমে রোববার সকালে জসিমকে বাঘা উপজেলার ছাতারি এলাকা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ জানায়,শনিবার রাতে আসামীদের বাড়ীতে অভিযান দেয়ার কারনে অপহৃত জসিমকে তারা বাঘায় এনে অটো রিকসা সহ ছেড়ে দেয়। এরপর পুলিশ জসিমকে ছাতারি এলাকা থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তদন্ত আনোয়ার হোসেন জানান, ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার তাকে আদালতে প্রেরণ করে ৬৪ ধারায় জবান বন্দি নেয়া হবে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *