গৃহবধূকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলা

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ  জয়পুরহাটে এক গৃহবধূ (২০) কে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে সদর উপজেলার কোমরগ্রাম নলপুকুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের রাহিম আকন্দের (২৮) বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। গত ১৭ অক্টোবর মামলা দায়ের হলেও আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় চরম শঙ্কার মধ্যে আছেন ভুক্তভোগীর পরিবার।

ভুক্তভোগীর পরিবার, মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৮ অক্টোবর বিকেলে জয়পুরহাট সদর উপজেলার কোমরগ্রাম নলপুকুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে রাহিম আকন্দ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ওই গৃহবধূকে ভিজিএফ চাউলের কার্ডে স্বাক্ষর দেওয়ার জন্য সহযোগিতার প্রলোভন দিয়ে রাহিম আকন্দের বাড়িতে ডাকে। এ কথায় ওই গৃহবধূ রাহিম আকন্দের বাড়িতে আসে। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে রাহিম আকন্দ কৌশলে তার শয়ন ঘরে নিয়ে গিয়ে জোড় পূর্বক ওই গৃহবধূকে জড়িয়ে ধরে শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চলিয়ে যৌন নিপীড়ন করে। ওই গৃহবধূ ধস্তাধস্তি করে নিজেকে রক্ষা করার জন্য চিৎকার দিতে চাইলে রাহিম ছেড়ে দিলে গৃহবধূ চলে আসে। এসে বিষয়টি তার স্বামীসহ প্রতিবেশী কয়েকজনকে জানায়। এ বিষয়ে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় রাহিমকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়েরের জন্য লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ গত ১৭ অক্টোবর মামলাটি নথিভুক্ত করে। আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় তারা চরম শঙ্কার মধ্যে আছেন ভুক্তভোগীরা।

ওই গৃহবধূর চাচা মুকুল সরকার বলেন, অভিযুক্ত গ্রেফতার না হওয়ায় আমরা সে বিভিন্ন জায়গায় হুমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে। আসামীকে আইনের কঠোর শাস্তি দেওয়া হোক। এটা দেখে যেন আর কোন মেয়েদের এমন না করতে পারে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত রাহিমের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তাকে না পেয়ে তার বাড়িতে গেলে রাহিমের মা সালেহা বেগম বলেন, আমরা ভালো খাই, ভালো পড়ি, আমাদের বিরুদ্ধে এসব ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এসব অভিযোগ মিথ্যা।

জয়পুরহাট থানার ওসি শাহরিয়ার খান বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আমরা মামলা রেকর্ড করেছি। তদন্ত অব্যাহত আছে। আসামীকে গ্রেফতারের জোড় তৎপরতা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *