সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে নেপালের সঙ্গে ট্রানজিট শুরু হবে —নেপালের রাষ্ট্রদূত

আবুল কালাম আজাদ (রাজশাহী):-বাংলাদেশের বাংলাবান্ধা দিয়ে যেমন নেপালের সঙ্গে বাণিজ্যিক কার্যক্রম চালু আছে, তেমনি রাজশাহী অঞ্চলের জনসাধারণের স্বার্থে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্থলবন্দর সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে দ্রুত একই ধরনের কার্যক্রম চালু করা হবে।গতকাল সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর পরিদর্শনে এসে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নেপালের রাষ্ট্রদূত ডা. বংশীধর মিশ্র এ কথা বলেন।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সময় তাদের অকুণ্ঠ সমর্থনের কথা ইঙ্গিত করে ডা. বংশীধর বলেন, তিন দেশীয় শক্তিশালী ট্রানজিট রুট হিসেবে বাংলাদেশের চট্টগ্রাম, মোংলা বন্দরসহ উত্তরাঞ্চলের এসব স্থলবন্দরকে কাজে লাগিয়ে অর্থনৈতিকভাবে আমরা অনেক দূর এগোতে পারি।

এছাড়া সম্ভাবনাময় রহনপুর রেলবন্দর দিয়ে নেপালে ৫০ হাজার টন সার রফতানি করা হয়েছে। তাই ওই রেলবন্দরটিও পূর্ণাঙ্গরূপে চালু করার উদ্যোগ নেয়া হবে। এজন্য বাংলাদেশ ও নেপাল সরকার ভারতের সঙ্গে বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা অব্যাহত রেখেছে।

এ সময় চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিমুল, শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব আল রাব্বি, অতিরিক্তি পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আতাউর রহমান, সোনামসজিদ পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের ম্যানেজার মঈনুল ইসলামসহ প্রশাসন ও বন্দরসংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *