রাজশাহীর মোহনপুরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন মনোনয়নবঞ্চিত আ.লীগ নেতা

মোহনপুর (রাজশাহী) প্রতিনিধি : রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার রায়ঘাটি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছেন মনোনয়নবঞ্চিত এক নেতা। রোববার দুপুরে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ ব্যাপারে দলীয় প্রধানের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে মনোনয়নবঞ্চিত সুরঞ্জিত কুমার সরকার নামের এই নেতা কান্নায় ভেঙে পড়েন। সুরঞ্জিত বর্তমানে মোহনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এবং জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। গতবার নির্বাচনে তিনি রায়ঘাটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছিলেন।

কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হয়েছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের তৎকালীন সভাপতি খলিলুর রহমান। নির্বাচনে খলিলুরই জেতেন। এবার খলিলুরের ছেলে বাবলু হোসেনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। অথচ তিনি আওয়ামী লীগের কোন পদ-পদবিতেই নেই।

সংবাদ সম্মেলনে সুরঞ্জিত কুমার সরকার অভিযোগ করেন, গতবার স্থানীয় সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে অবস্থান নেওয়ায় তিনি পরাজিত হন। এবারও নির্যাতিত নেতা হিসেবে তিনি জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকলেও কৌশলে মনোনয়ন এনে দেওয়া হয়েছে চেয়ারম্যান খলিলুর রহমানের ২৫ বছরের ছেলে বাবলু হোসেনকে।

সুরঞ্জিত বলেন, ‘যাঁকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে, তাঁকে এলাকার কেউ চেনে না। টাকা বা অন্য কোনকিছুর বিনিময়ে কেন্দ্র থেকে তাঁকে কৌশলে মনোনয়ন এনে দেওয়া হয়েছে। আমি নেত্রীর কাছে আবেদন জানাই, তিনি একটা তদন্তের ব্যবস্থা করুন। মাঠজরিপ করুন, কার জনপ্রিয়তা বেশি। আমার জনপ্রিয়তা বেশি হলে যেন সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা হয়।’

কান্নায় ভেঙে পড়ে সুরঞ্জিত সরকার বলেন, ‘আওয়ামী লীগ করার কারণে ২০০৫ সালে ২২ দিন, ওয়ান-ইলেভেনের সময় ১৪ দিন কারাভোগ করেছি। ২০১৪ সালের নির্বাচনের পর নাশকতার প্রতিরোধ করায় বিএনপি-জামায়াতের হামলার শিকার হই। শুধু রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে মনোনয়নের সুপারিশের তালিকায় আমার নাম পাঁচ নম্বরে লেখা হয়। আর কোন পদে না থাকা বাবলু হোসেনের নাম লেখা হয় তালিকার এক নম্বরে।’

এর আগে শনিবার সুরঞ্জিত কুমার সরকার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের কাছে একটি লিখিত আবেদন দিয়েছেন। এ ছাড়া সুরঞ্জিতকে মনোনয়ন না দিয়ে বাবলুকে মনোনয়ন দেওয়ার প্রতিবাদে সেদিন উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ রাজশাহী নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে বিক্ষোভ-মিছিল ও সমাবেশ করেছেন। এছাড়াও রোববার বিকালে রায়ঘাটি ইউনিয়নের হাটরা গেডির মোড়ে সাধারণ জনগণকে নিয়ে বাবলু হোসেনের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে সমাবেশ করেছেন মনোনয়নবঞ্চিত অাওয়ামীলীগের নেতা সুরঞ্জিত কুমার সরকার।

মোহনপুর উপজেলা অাওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মফিজ উদ্দিন কবিরাজের ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, রায়ঘাটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অাওয়ামীলীগের মনোনয়নপ্রাপ্ত বাবলু হোসেন ইউনিয়ন অাওয়ামীলীগের অাহবায়ক কমিটির সদস্য।

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *