রাজশাহীতে “ইমো” হ্যাকিং চক্রের তিন সদস্য আট

রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহীতে “ইমো” হ্যাকিং চক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব -৫। আজ রোববার রাতে মহানগীর চন্দ্রিমা থানাধীন চন্দ্রিমা আবাসিক এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। তবে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে আরো তিনজন ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে গেছে।

আটককৃতরা হলেন, নাটোরের লালপুর থানাধীন বিলমারিয়া এলাকার মৃত সামাদ বিশ্বাসের ছেলে  শাকিব বিশ্বাস (১৯), মমিনপুর এলাকার জাফর আলীর ছেলে মেহেদী আলী(২১) ও রাজশাহীর হরিরামপুর এলাকার আলম হোসেনের ছেলে  আল আমিন(২০)।

রোববার দুপুরে র‌্যাবে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়,রোববার রাত পৌনে ২টা থেকে সাড়ে ৩ টা পর্যন্ত গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাজশাহী মহানগীর চন্দ্রিমা থানাধীন চন্দ্রিমা আবাসিক এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এসময় মোবাইল ফোন ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম “ইমো” হ্যাকিং করে বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণাপূর্বক অর্থ হাতিয়ে নেওয়ায় ইমো হ্যাকিং এর আলামতসহ তিনজনকে আটক করা হয়।

এসময় মোবাইল -২১ টি, সিমকার্ড-৪৯ টি,  মেমোরীকার্ড-৪ টি, ল্যাপটব- ২ টি,  ক্যামেরা- ১ টি,  ব্লু-টুথ মাউস- ২ টি, চার্জার- ৩ টি, টেলিফোন- ১ টি,  সিসি ক্যামেরা- ১ টি ও নগদ টাকা-৪৫,০০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা র‌্যাবকে জানায় যে, পলাতক তিনজন আসামীসহ তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে প্রবাসীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের “ইমো” ব্যবহারকারীদের ইমো হ্যাক করে এবং পরবর্তীতে ভিকটিমের পরিচিতজনদের নিকট হতে প্রতারণাপূর্বক মোবাইল ফিন্যান্সিং সার্ভিস (বিকাশ) এর মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেয়।

এ ঘটনায় রাজশাহী মহানগরীর চন্দ্রিমা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে বলেও র‌্যাব জানায়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *