বাঘা পৌর নির্বাচনের পরে নৌকার সমর্থককে হুমকি ও বাড়ি ভাংচুরের অভিযোগে আটক ৫

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘা পৌর নির্বাচনের পরে নৌকার প্রার্থীর সমর্থককে হুমকি, হামলা ও বাড়ি ভাংচুরের অভিযোগে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থীর ৫ জন সমর্থককে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) রাতে পাকুড়িয়ার পানিকামড়া এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়েছে।
জানা যায়, ২৯ ডিসেম্বর বাঘা পৌর নির্বাচনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী শাহিনুর রহমান পিন্টু স্বতন্ত্র প্রার্থী আক্কাছ আলীর কাছে পরাজিত হয়। স্বতন্ত্র প্রার্থী আক্কাছ আলী বিজয়ী হওয়ার পরের দিন শুক্রবার পরাজিত প্রার্থীর শাহিনুর রহমান পিন্টুর সমর্থকদের বাড়িতে হামলা, হুমকি ও বাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে মর্মে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাঘা থানার পুলিশ শুক্রবার রাতে নারায়নপুর গ্রামের আবদুল হক দুলুর ছেলে রিজভী আহমেদ রাজিব(৩৫), আড়পাড়া গ্রামের মাজদার রহমানের ছেলে হিমেল হোসেন (২৯), পাকুড়িয়া গ্রামের ইনছার আলীর ছেলে আমিরুল ইসলাম (৫২), দক্ষিন মিলিকবাঘা গ্রামের জামাল উদ্দিনের ছেলে মিলন হোসেন (২৯),আলাইপুর গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে সবুজ হোসেনকে (২৯) আটক করে পুলিশ।
এ বিষয়ে পাকুড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক নয়ন সরকার বলেন, নৌকার পক্ষে কাজ করায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজন বাড়িতে গিয়ে হুমকিও ভাংচুর করে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।
এ দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী সমন্বয়ক পাকুড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজ বলেন, ২৯ ডিসেম্বর নির্বাচনে আমরা কোন ক্যাম্প করিনি। নির্বাচনী প্রচারনার করতে গিয়ে নৌকার সমর্থিতরা প্রতিবন্ধকতা করেছেন। আমরা কৌশল অবলবম্বন করে নির্বাচিত হয়েছি। তারা পরাজিত হওয়ার পরে আমাদের সমর্থিতদের হুমকি দিচ্ছে। তারাই হুমকি দিয়ে আমাদের লোকজনের উপর অভিযোগ করে পুলিশকে দিয়ে হয়রানি ও আটক করানো হচ্ছে।
এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসিসাজ্জাদ হোসেন বলেন, বাঘা পৌর নির্বাচনে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজন নৌকার সমর্থিতদের হুমকির, হামলা ও বাড়ি ভাংচুরের অভিযোগে ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে আসামীদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *