বাঘায় রাতের আধারে ভেঙ্গে দেয়া হলো ঘর

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধিি: রাজশাহীর বাঘায় চলমান পাকা বাড়ি নির্মাণ রাতের আধারে ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) কে বা কারা শত্রুতা মুলকভাবে ভেঙ্গে দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে আড়ানী নুরনগর গ্রামে।
জানা যায়, উপজেলার আড়ানী নুরনগর গ্রামের আতাহার আলী আতুর হতদরিদ্র দিনমুজুর ছেলে রাজিব হোসেন ক্রয় করা জমিতে পাকা বাড়ি নির্মাণ কাজ শুরু করেন। বাড়ির ধারি পর্যন্ত ইট দিয়ে মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত গাথা হয়েছে। এই গাথা কাজ রাতের আধারে ভেঙ্গে দিয়েছে।
এ বিষয়ে রাজিব হোসেন বলেন, আমি একজন অত্যান্ত গরীব মানুষ দিনমুজুরের কাজ করি। অনেক কষ্টে কয়েক বছর আগে ৮ শতাংশ জমি ক্রয় করেছি। এই জমিতে পাকা বাড়ির কাজ শুরু করি। ৮০০ টাকা জোড়া হিসেবে তিনদিন থেকে রাজমিস্ত্রি কাজ করছে। নির্মাণ কাজ ধারি থেকে ৫/৬ খানা ইট গাথা হয়েছিল। এ সময় রাতের আধারে কে বা কারা ভেঙ্গে দিয়েছে।
আড়ানী ইউনিয়নের নুরনগর গ্রামের নারী মেম্বার নাদিরা বেগম বলেন, আমার বাড়ি পাশে এই ঘটনাটি ঘটেছে। আমি ভাংচুর করা ঘর দেখেছি। তবে এই কাজের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের আইনীভাবে শাস্তির দাবি জানান তিনি।
আড়ানী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নুরনগর গ্রামের বজলুর রহমান বলেন, এই এলাকায় একটি সিন্ডিকেট গ্রুপ তৈরী হয়েছে। এলাকায় নতুন কেউ কোন বাড়ি করতে গেলে কৌশলে চাঁদা দাবি করা হচ্ছে। চাঁদ দিতে না পারলে রাতের আধারে ভেঙ্গে দেয়া হচ্ছে। তবে এদের ভয়ে কেউ মুখও খুলছেনা। তার প্রশ্ন এই গ্রুপকে কে পরিচালনা করছে। সঠিকভাবে তদন্ত করে তাদের আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য দাবি জানান তিনি।
এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, এই বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আইনী ব্যবস্থা নিব।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *