বাঘায় নারী নির্যাতন ও সাজা ওয়ারেন্ট সহ ৪ জন গ্রেফতার

বাঘা(রাজশাহী) প্রতিনিধি : ভালো কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ পুরুস্কার পেলে কাজের গতি বৃদ্ধি পায়। যার প্রমান দিচ্ছে রাজশাহীর বাঘা থানা পুলিশ। তাঁরা জেলা পুলিশ সুপারের নিকট থেকে পর-পর কয়েকবার শ্রেষ্ট হওয়ায় একের পর এক ধরছে বিভিন্ন মামলার সাজা এবং ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামী। যার প্রমান মিলছে প্রায়ই।

শুক্রবার(৩০-জুলাই) দুপুরে বাঘা থানা থেকে করে জানা গেছে, নারী ও শিশু নির্যাতন আইন মামলায় ওয়ারেন্টভুক্ত একজন এবং একাধিক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত সহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত এবং শুক্রবার সকালে অভিযান চালিয়ে এসব আসামীদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো উপজেলার চকরাজাপুর ইউনিয়নের পদ্মার চরাঞ্চলের পলাশী ফতেপুর গ্রামের সিরাজ শেখের পুত্র মোহাম্মদ কালু শেখ(৪০)। তার নামে একটি মামলায় সাজা-সহ তিনটি মামলায় ওয়ারেন্ট রয়েছে।

এ ছাড়াও উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের ভানুকর গ্রামের কালু প্রামানিক এর পুত্র শের আলম (৫৫)। তার নামে ৩ টা মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা সহ একটি মামলায় সাজা ওয়ারেন্ট রয়েছে।

অপর একজন ফিরোজ আলী(৩২) পিতা লুৎফর রহমান। বাড়ী গড়গড়ি ইউনিয়নের আশরাফপুর গ্রামে। তার নামে রয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা।

অন্যদিকে প্রতারণা মামলায় এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী ও আড়ানী পৌর সভার জনৈক কাউন্সিলরের ভাই সাজেদুল ইসলাম(৩৫)কে তার নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার সকাল ১০ টা পর্যন্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একজনকে নিজ বাড়ী এবং অন্যান্যদের পৃথক-পৃথক এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃত আসামীদের শুক্রবার দুপুরে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *