বাঘায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত-৯

বাঘা রাজশাহী প্রতিনিধি : রাজশাহীর বাঘায় বাড়ির ভেতর থেকে বৃষ্টির পানি বের করে রাস্তায় নামানোর ঘটনাকে কেন্দ্রে করে দুই পরিবারের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষে ৯ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে মুমুর্শ অবস্থায় একজনকে রামেক হাসপাতালে রেফাট করেছেন কর্তবরত চিকিৎসক। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার মনিকগ্রাম দক্ষিন পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দিবা গত রাতে বৃষ্টি হওয়ার কারনে মনিগ্রাম দক্ষিনপাড়া এলাকায় জনি ইসলামের বাড়ির উঠনে পানি জমা হয়। তিনি সকালে ঘুম থেকে উঠে ৭ টার সময় ঐ পানি বাড়ির পাশের রাস্তায় বের করতে থাকেন। এ নিয়ে রাস্তার অপর পাশের বাসিন্দা সহদ্বর দুই ভাই দবির ও খবির প্রাং এর সাথে তার তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়। ঘটনার এক পর্যায় তারা জনি ইসলামের উপরে অতর্কিত হামলা চালায়। এই হামলার খবর শুনে জনির পিতা আব্দুর রহমান(৫৫) এগিয়ে এলে প্রতিপক্ষরা তাকেও মারপিট করে। এ খবর শুনে স্থানীয় লোকজন জনির পক্ষ নেয় এবং দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ৯ জন আহত হয়।
আহতরা হলেন জনির পক্ষে-জনি নিজে(২২) ও তার পিতা আব্দুর রহমান(৫৫),মা আমানো বেগম(৪৭) বকুল হোসেন(৩৮) ও সুজন আলী(৩২)। অপর দিকে এলাকাবাসীদের হামলায় শিকার হয়ে আহত হয়েছেন, খবির(৩৫)দবির(৩৩) মরিয়ম বেগম(৫৫) ও খবিরের স্ত্রী লাকি বেগম(২৮)। আহতদের স্থানীয় বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে মুমুর্শ অবস্থায় আব্দুর রহমান নামে একজনকে রামেক হাসপাতালে রেফার্ট করেছেন কর্তবরত চিকিৎসক।
স্থানীয় মজিবুল ও আস্তুল সহ অনেকেই জানান, খবির-দবির দুই ভাই মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। তারা এলাকার যুব সমাজকে নষ্ট করছে। তাদের নামে বাঘা থানায় মাদক ও চোরাচালান মামলা রয়েছে।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)নজরুল ইসলাম জানান এ ঘটনায় পৃথক দুটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *