পেছনে ফিরে তাকানোর দিন শেষ, এখন আমরা অগ্রসর হবো সামনের দিকে : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা : বর্তমান সরকার আমলে পৃথিবী যে গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে, বাংলাদেশ তার চেয়ে চারগুন বেশি গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, আমাদের পেছনে ফিরে তাকানোর দিন শেষ। এখন আমরা অগ্রসর হবো সামনের দিকে। শুক্রবার (৬- জানুয়ারী) রাতে বাঘার হরিরামপুর ও মনিগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত একাডেমিক ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতারের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের পর আমরা বিদেশ থেকে অনেক ত্রাণ সামগ্রী এনেছিলাম। কিন্তু সরকারের বর্তমান বাজেটে বিদেশীদের কোন অনুদান-সহায়তা নেই। আমরা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে গত ১৪ বছরে অনেক এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশকে আরও এগিয়ে নেওয়ার লক্ষে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখছি । আমাদের দেশ এগিয়েছে অনেক। তবে আরও এগিয়ে নিতে হবে। একটি উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ অর্জন এখন আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। আর এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে সহায়তা করবে আজকের তরুণ প্রজন্ম।

মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শোষণ-বঞ্চনা মুক্ত একটি সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখে ছিলেন। আর তাঁর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার মাধ্যমে একটি সুখী-সমৃদ্ধ অসা¤প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখছেন। এ জন্য শিল্প কারখানা, ব্যবসা-বাণিজ্য, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও কৃষিসহ সকল ক্ষেত্রে অগ্রগতির কথা ভাবছি আমরা। তিনি বলেন, ১৯৭০ সালে এদেশে যে পরিমান ধান উৎপাদন হতো, এখন তার দ্বিগুন হয়। মাছ চাষে বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে। শেখ হাসিনা দায়িত্ব নেয়ার পর শিক্ষাকে গুরুত্ব আরোপ করে ইতোমধ্যে ২৬ হাজার একাডেমিক প্রাথমিক ভবন নির্মান সহ ৩৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সম্পন্য করেছেন।

শাহরিয়ার আলম বলেন, জিয়াউর রহমান মরে বেঁচে গেছে। তা না হলে তাকে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় ফাঁসি দেয়া লাগতো। তিনি সারের দাবিতে আন্দোলন করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ দেশের ২৩ জন কৃষককে হত্যা করে ছিলেন। বর্তমানে তাঁর স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া এতিমদের টাকা আতœসাৎ মামলায় সাজা নিয়ে বিদেশে চিকিৎসা নিতে চান। অথচ এই জিয়াউর রহমান ৭৫ এর ১৫ আগষ্ট একটি পরিবারকে নির্মম ভাবে হত্যা করার পরেও তার দুই কন্যাকে ৩২ নম্বরের বাড়িতে প্রবেশ করতে দেননি। উপরোন্ত জামাত-বিএনপি জোট বেধে শেখ হাসিনাকে ২২ বার হত্যার চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়েছে।এর চেয়ে ঘৃনিত অপরাধ আর কি হতে পারে ?

পৃথক দুটি সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, দুই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, মনিগ্রাম ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান ও সভাপতি সাইফুল ইসলাম সহ বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আনজারুল ইসলাম।

উপস্থিত ছিলেন বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল , উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মীর মো: মামুনুর রহমান, উপজেলা প্রকশৌলী নুরুল ইসলাম , উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সদস্য মাসুদ রানা তিলু, সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন ও সিরাজুল ইসলাম মন্টু, উপজেলা আ’লীগের সাবেক-সহ সভাপতি কাফাতুল্লাহ সরকার, আড়ানী পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক রিবন আহাম্মেদ বাপ্পি,বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সোহানুর রহমান সোহাগ, উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য জাহিদ হোসেন, পুলিশ প্রশাসন ও ছাত্রলীগ নেতা তানজীম হাসান স্বদেশ-সহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ। #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *