পিতাকে আর্থিক সহযোগীতা করতে গিয়ে লাশ হলেন স্কুল ছাত্র

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি: মহামারী করোনা সময় পিতার দূরদশার সংসারে একটু সহযোগিতা করার জন্য ঢাকায় রাজমিস্ত্রী কাজে যান ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র শাহরিয়ার কবির। ঢাকার যাত্রাবাড়িতে কাজও পেয়ে যান কিন্তু ৭দিনের মাথায় লাশ হয়ে ফিরলেন ১৩ বছরের ছাত্রটি। বুধবার সকাল ৯টায় নিজ বাড়ি গোমস্তাপুর উপজেলার বাঙ্গাবাড়ী ইউনিয়নের জোড়াগাছিয়া গ্রামে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়।
মৃত শাহরিয়ার পিতা আলাউদ্দিন কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, তার ছোট ছেলে একজন স্কুল ছাত্র। বাঙ্গাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে লেখাপড়া করত। করোনায় স্কুল ছুটি থাকায় পরিবারকে আর্থিক সহযোগীতা করার জন্য এলাকার লোকজনের সাথে রাজমিস্ত্রির কাজে ঢাকা যায়। যাত্রাবাড়ী এলাকায় কাজে পেয়ে যান শাহরিয়ার। কিন্তু মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে কাজরত অবস্থায় ৬ তলা থেকে পড়ে মারা যায়। রাত তিনটায় তার লাশ বাড়িতে এসে পৌঁছে। বুধবার সকাল ৯টা তার জানাযা নামাজ শেষে গ্রামের কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়।
এদিকে শাহরিয়ারের মৃত্যুতে আত্মীয়-স্বজন,সহপাঠীসহ এলাকার লোকজনের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *