‘ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে’ ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) গাজীপুরের শ্রীপুরে পাওনাদারদের চাপের মুখে ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে চা-দোকানি আমজাদ হোসেন (৫৫) নামে এক বৃদ্ধা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

নিহত আমজাদ হোসেনের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার পাথরকাটা গ্রামে। তিনি জৈনাবাজার এলাকায় জুলহাস মিয়ার বাড়িতে স্ত্রী-সন্তানসহ ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন এবং  স্থানীয় আনিসের মার্কেটে প্রায় ১০ বছর যাবত চায়ের দোকান চালাতেন।

নিহতের স্ত্রী লিপি বেগম জানান, আমজাদ হোসেন প্রায় ১০ বছর ধরে জৈনাবাজার এলাকার আনিসের মার্কেটে চা বিক্রি করতেন। সামান্য চায়ের ব্যবসা পরিচালনা করে সাংসারিক খরচের পাশাপাশি তিন মেয়েকে বিয়ে দিতে গিয়ে ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি। ব্যবসা পরিচালনা ও সাংসারিক প্রয়োজনে কিছু পরিচিত লোকজনের কাছ থেকে ঋণ নেন। তিনি ঋণের টাকার কিস্তি ও পাওনাদারদের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় চাপের মুখে পড়েন। পাওনাদারের চাপ এবং সাংসারিক অসচ্ছলতার কারণে হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি।

স্ত্রী লিপি বেগম জানান, তার স্বামী প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রাতে দোকানে ঘুমাতে যান। বুধবার সকালে দোকানে এসে আমার স্বামীর কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা খোলার চেষ্টা করি, পরে দেখতে পাই সে ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলে আছে।

শ্রীপুর মডেল থানার এসআই মো. ইসলাম মিয়া জানান, বুধবার সকালে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষে কোনো অভিযোগ না থাকায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে স্বজনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সূত্রঃ অনলাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *