উপহারের ভারতীয় WDM 3D মডেল লোকোমোটিভ

আবুল কালাম আজাদ (রাজশাহী);-   ভারতের দেয়া উপহার ট্রেনর   WDM 3D মডেলের  ২০ টি লোকোমোটিভের মান  নিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা।
 বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত যে সকল লোকোমোটিভ আছে তার মধ্যে ইন্ডিয়া থেকে উপহারের যে ১০ টি লোকোমোটিভ ছিল ৬৫২৭-৬৫৩৬ এগুলা সব থেকে বেশি ক্ষমতা সম্পন্ন! যা বর্তমান সময়ে আমদানি করা ৬৬ সিরিজের আমেরিকান ইএমডিও এর সেই ক্ষমতা নাই।
ভারত বিদ্বেশি মনভাব নিয়ে, উচ্চ গতি ও ক্ষমতা সম্পন্ন ইন্জিন গুলো নিয়ে সমালোচনা  বা বেফাঁস মন্তব্য করা আরও নিজ দেশের ভাবমূর্তি  ক্ষুন্ন করার সামিল।
কেন সেই ১০ টা 3D লোকোমোটিভ ফ্রেইট ট্রেনে দেওয়া হয়েছে? আন্তঃনগর ট্রেনে কেন কাজ করে না! কারণ এই লোকোমোটিভ গুলি অনেক ভারী । আমাদের দেশে WDM 3D চলার মত ক্ষমতায় রেললাইন খুবই সীমিত যেখানে ১০০ কিমি স্পিডে এই 3D নিয়ে ট্রেন চলবে! যার কারণে এই লোকোমোটিভ গুলো যমুনা সেতু পারি দেওয়ার অনুমোদন নাই।  বাংলাদেশ সরকার যদি  কোটি কোটি টাকা খরচ করে EMD না এনে এই 3D নিয়ে আসতো সেটা আরো ইতিবাচক হতো আমাদের রেলের প্রেক্ষাপটে।
 বাংলাদেশের সফল লোকোমোটিভ ৬৫/৬৪ এগুলা কোথায় থেকে নেওয়া হয়েছে??? এগুলা কি খারাপ পারফরম্যান্স দিয়েছে? এখনও ৬৪/৬৫ যে সার্ভিস দিচ্ছে এগুলা ই এম ডি দিতে পারবে ? কোরিয়ান এমজি ইঞ্জিন কেমন গাছতলায় পড়ে ছিল।
ভারত যে বাংলাদেশকে খারাপ জিনিস দেয় এই ধরনের চিন্তাভাবনা থেকে অন্তত রেল সেক্টরকে।বেরিয়ে আসতে হবে।
 ভারতের এল এইচ বি কোচ আর ইন্দোনেশিয়ান পিটি ইনকা কোচের পারফরম্যান্স এর প্রমানই যথেষ্ঠ।
খামোখা নিজদের দেশকে ছোট করে কি মজা পান আপনারা। মনে রাখা উচিত  উপহার কখনো ছোট হয়না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *