আদিবাসীর জমি  দখল করে  দালান বাড়ী নির্মাণ

রাজশাহী প্রতিনিধি:- রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় এক আদিবাসীর জমি জবর দখল করে জোর পূর্বক পাকা দালান বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে।
উপজেলার রিশিকুল ইউনিয়নে ঝিকরা আমতলীপাড়ায় এই ঘটনা ঘটেছে।
জোর পূর্বক দখল করে বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ তুলে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকের কাছে
১৯ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার  লিখিত অভিযোগ করেছে আমতলীপাড়া গ্রামের ভুক্তভোগী  মৃত শ্যাম মার্ডির ছেলে ভোলা মার্ডি।
অভিযোগ সূত্রে ও অভিযোগকারী ভোলা মার্ডির কাছ থেকে জানা যায়, সরকারের নিকট থেকে ১৯৯১ সালের দিকে বামলাহাল মোজার জেএল নং ৩৪২, আরএস খতিয়াত নং-১, হাল দাগ নং ৫৪/৯০১ এর ৩৪ শতক খাসজমি বন্দোবস্ত হিসেবে পত্তন গ্রহণ করে ভোলা মার্ডি। সে একজন গরীব অসহায় আদিবাসী মানুষ হিসেবে সরকার তাকে পত্তন দেয়।
ভোলা মার্ডি আরো জানান, কিছু দিন আগে থেকে একই এলাকার এরফান আলীর ছেলে সাহজাহান রাতের আঁধারে মাটি ভারট করে পাকা-দালাবাড়ী নির্মাণ শুরু করেছে। আমিসহ স্থানীয় মানুষকে নিয়ে গিছে বাড়ী ঘর নির্মাণ করতে নিষেধ ও কাগজপত্র দেখাতে বললে সাহজাহান ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে জোর পূর্বক বাড়ী নির্মাণ করে নিয়েছে। এই ঘটনায় রিশিকুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ দিয়েও কোন লাভ হয়নি। ভোলামার্ডি অভিযোগ করেন, এই বাড়ী নির্মাণের পেছনে গোদাগাড়ীর মৃত. মুঞ্জর রহমানের ছেলে ডাবলুর নির্দেশে জোর করে বাড়ী নির্মাণ করছে। এছাড়াও এদের পেছনে আরো শক্তিশালী মহল জড়িত বলে জানান।
এই বিষয়ে সাজাহানের নিকট জানতে চাইলে, ওই জায়গার তার কোন কাগজপত্র বা দলিলাদি নেই স্বীকার করে বলেন তিনি বলেন, আমি ওখানে নিজে বাড়ী নির্মাণ করতে যায়নি। গোদাগাড়ীর মঞ্জুর রহমানের ছেলে ডাবলু আছে তার নির্দেশে বাড়ী ঘর নির্মাণ করছি। আদিবাসীর বন্দোবস্ত নেওয়া জমি কারো নির্দেশে কেনো নিজে বাড়ী নির্মাণ করবেন এমন প্রশ্ন করা হলে সদুত্তর না দিয়ে কাজ বন্ধ করা মিমাংসা না হওয়া পর্যন্ত আর কাজ করবেন না বলে জানান।
অভিযোগের বিষয়ে রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে, আগামী ২৯ জানুয়ারী রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর জনসভার বিভিন্ন মিটিং এ ব্যস্ত থাকায় বক্তব্য পাওয়া সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *